Pre-loader logo

আইসিসিবিতে শুরু হলো এশিয়ান ট্যুরিজম ফেয়ার

আইসিসিবিতে শুরু হলো এশিয়ান ট্যুরিজম ফেয়ার

দেশে পর্যটনশিল্পকে বেগবান করার লক্ষ্য নিয়ে ঢাকায় শুরু হয়েছে ষষ্ঠ এশিয়ান ট্যুরিজম ফেয়ার। গতকাল বৃহস্পতিবার ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) তিন দিনব্যাপী এই আয়োজনের উদ্বোধন হয়েছে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন নিরাপদ ট্যুরিস্ট কান্ট্রি। এখানে ট্যুরিজম উল্লেখযোগ্য স্থানে চলে এসেছে। এর পরও আমরা বিদেশি পর্যটকদের সেভাবে আকর্ষণ করতে পারছি না। কারণ দেশের পর্যটনশিল্পে এখনো অবকাঠামোগত সমস্যা রয়ে গেছে।’ তিনি বলেন, ‘ভারত, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ পর্যটন খাতের জন্য ই-ট্যুরিজমের ব্যবস্থা করেছে। এ বিষয়ে আমরা এখনো পিছিয়ে আছি। এ ছাড়া আমাদের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক মূল্যবোধের কারণে অনেক কিছু করা সম্ভব হয়ে ওঠে না। তবে দেশ এই খাতে অনেক দূর এগিয়েছে।’
পর্যটনমন্ত্রী আরো বলেন, ‘এবারের পর্যটন মেলা বিশ্বদরবারে বাংলাদেশকে অন্যভাবে তুলে ধরবে। এই মেলার মাধ্যমে ব্যবসা-বাণিজ্যে অগ্রগতি হবে। আমাদের নতুন পণ্য বিশ্বের কাছে পরিচয় করিয়ে দেওয়া সম্ভব হবে।’
এশিয়ান ট্যুরিজম ফেয়ারের আহ্বায়ক মহিউদ্দিন হেলাল বলেন, ‘মেলায় বাংলাদেশসহ অন্যান্য দেশের আকর্ষণীয় ভ্রমণ, হোটেল বা প্যাকেজ বুকিংসহ এয়ার টিকিটের ক্ষেত্রে বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা রয়েছে। মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে হোটেল, মোটেল, রিসোর্ট, ট্যুর অপারেটর, ট্রাভেল শপ ও ভ্রমণ বিনোদনসংশ্লিষ্ট অনেক প্রতিষ্ঠান।’
বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের ব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) জিয়াউল হক হাওলাদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরা বক্তব্য দেন বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব এস এম গোলাম ফারুক, পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান আকতারুজ্জামান খান কবির, পর্যটন বোর্ডের সিইও ড. নাসির উদ্দিন, ঢাকায় নিযুক্ত ফিলিপাইনের রাষ্ট্রদূত ভিসেন্ট ডিফেন্স, ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত রিসাপি সোমার্নো প্রমুখ।
পর্যটন বিচিত্রার আয়োজনে শুরু হওয়া মেলা চলবে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। আয়োজকরা জানিয়েছেন, প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকবে মেলার ১২০টি স্টল। প্রবেশমূল্য ২০ টাকা ধরা হলেও শিক্ষার্থীদের জন্য বিনা মূল্যে প্রবেশের সুবিধা রয়েছে। প্রবেশকারীদের কুপনের বিপরীতে থাকছে র‍্যাফেল ড্র।
ট্যুরিজম ফেয়ারে অংশ নেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলো ভ্রমণ প্যাকেজে বিশেষ ছাড় দিচ্ছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস আন্তর্জাতিক মেলার ‘এয়ারলাইন পার্টনার’। প্রতিদিন প্রবেশ টিকিটে র‍্যাফেল ড্রর মাধ্যমে সৌজন্য টিকিটের ব্যবস্থা থাকছে। পুরস্কার হিসেবে থাকছে আন্তর্জাতিক রুটের রিটার্ন টিকিট।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.