Pre-loader logo

করোনা চিকিৎসায় প্রস্তুত হচ্ছে আরো তিন হাসপাতাল

করোনা চিকিৎসায় প্রস্তুত হচ্ছে আরো তিন হাসপাতাল

কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য রাজধানীর ১২টি নির্ধারিত হাসপাতালে পুরোদমে চলছে চিকিৎসা। রোগীদের সেবায় সর্বোচ্চ দেয়ার কথা বলছেন দায়িত্বরত চিকিৎসক ও নার্সরা। তবে দিন দিন রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা বাড়ানোর প্রয়োজনীয়তার কথা বলছে কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় কিছুদিনের মধ্যে আরও তিনটি হাসপাতালে করোনা চিকিৎসা শুরু হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

রাজধানীতে কোভিড নির্দিষ্ট ১২টি হাসপাতালে পুরোদমে চলছে করোনা আক্রান্তের চিকিৎসা। বাড়ছে সংক্রমণ বাড়ছে রোগীর সংখ্যা, তৈরি হয়েছে শয্যা সংকটও। তবে হার মানতে নারাজ চিকিৎসক নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা।

শুক্রবার (০৮ মে) পর্যন্ত এসব হাসপাতালে ভর্তি আছেন প্রায় ১৬শ’ রোগী। কতৃর্পক্ষ বলছে, হাসপাতালে আসা প্রতিটি রোগীর সেবা নিশ্চিতে শয্যা সংখ্যা বাড়ানোর কাজ করছেন তারা।

এ বিষয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন জানান, এখন আমরা বার্নটাতে কাজ করছি। খুব শিগগিরই যখন আমরা মেডিসিনটা চালু করবো, তখন ওখানে অনেক রোগী চলে আসবে।

এদিকে, দুই একদিনের মধ্যে হলি ফ্যামিলি হাসপাতালেও কোভিড-১৯ এ আক্রান্তদের চিকিৎসায় দেয়া হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এরপরপরই বসুন্ধরায় ২ হাজার ও মহাখালীর ডিএনসি মার্কেটের ১ হাজার ৫০০ শয্যার হাসপাতাল চালু হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল শাখা) আমিরুল হাসান জানান, আরো কিছু হাসপাতাল চালু করতে যাচ্ছি। হলি ফ্যামিলির একটা যেটা ৫শ’ বেডের, দুই একদির মধ্যে চালু হবে। আবার বসুন্ধরায় আমাদের ২ হাজার বেডের চালু হবে। তারপর ডিএনসি মার্কেটে ১৫শ’ বেড চালু হবে।

এদিকে, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ কোভিড আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার নির্ধারিত হাসপাতালগুলোর বাইরেও অন্যান্য হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত রাখার।

করোনা ভাইরাসে এখন পর্যন্ত দেশের ৬৪টি জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ হাজার ছাড়িয়েছে। প্রাণহানি দুই শতাধিক।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.