Pre-loader logo

চিটাগংকে উড়িয়ে দিল রংপুর

চিটাগংকে উড়িয়ে দিল রংপুর

হেলিকপ্টার শট দিয়েই রংপুর রাইডার্সকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিলেন আফগান তারকা মোহাম্মদ শেহজাদ। মাত্র ৫২ বলে খেললেন অপরাজিত ৮০ রানের স্বপ্নিল এক ইনিংস। ৩০ বল হাতে রেখেই ৯ উইকেটের বিশাল জয় পেল উত্তরাঞ্চলের দলটি।
শেহজাদ তার ইনিংসে ১১টি বাউন্ডারি ছাড়াও হাঁকিয়েছেন ৩টি বিশাল ছক্কা। তার দ্বিতীয় ছক্কায় বল গিয়ে পড়েছিল গ্রান্ডস্ট্যান্ডের দ্বিতীয় তলায়। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের বড় ছক্কাগুলোর একটি।
 

প্রথম ম্যাচে চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের বিপক্ষে জয়ের পর কাল যেন প্রতিদ্বন্দ্বিতাই করতে পারল না তামিম ইকবালের চিটাগং ভাইকিংস।
রংপুর রাইডার্সের জয়ের ভিত্তিটা গড়ে দিয়েছিলেন বোলাররাই। ব্যাটিং-সহায়ক উইকেটে চিটাগং ভাইকিংসকে মাত্র ১২৪ রানেই আটকে দেয় নাঈম ইসলামের দল। তারপর আফগান তারকার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে যেন রীতিমতো উড়ে গেল চিটাগং ভাইকিংস।
বোলিংয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন স্পিনার সোহাগ গাজী। নিজের দ্বিতীয় ওভারেই ভাইকিংসের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও ডোয়াইন স্মিথের উইকেট তুলে নেন। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ১২৪ রানেই অলআউট হয়ে যায় তামিম ইকবালের দল। গাজী ৩ ওভার বোলিং করে মাত্র ১৮ রানে নিয়েছেন ২ উইকেট। তবে ১ উইকেট পেলেও বোলিংয়ে সবচেয়ে বেশি কিপটেমি করেছেন রংপুর রাইডার্সের সেরা তারকা পাকিস্তানের অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি। ৪ ওভারে মাত্র ১২ রান দিয়েছেন তিনি।
চট্টগ্রামের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩০ রান এসেছে পাকিস্তানের অলরাউন্ডার শোয়েব মালিকের ব্যাট থেকে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৫ রান করেছেন এনামুল হক বিজয়। তবে গতকাল বিজয়ের শুরুটা করেছিলেন দারুণভাবে। কিন্তু আগের ম্যাচের মতো গতকালও রানআউট।
গতকাল বল হাতে দুর্দান্ত দাপট দেখালেও আফ্রিদিকে ব্যাট হাতে নামতেই হয়নি। শেহজাদ একাই শেষ করে দিয়েছেন। ম্যাচসেরার পুরস্কারও জিতেছেন রাইডার্সের এই আফগান তারকা। রংপুর রাইডার্সের টাইটেল স্পন্সর দেশের শীর্ষ শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফওয়ান সোবহান ও তার স্ত্রী ইয়াশা সোবহান সন্ধ্যায় ম্যাচটি উপভোগ করেন। সাফওয়ান সোবহান অন্যদের সঙ্গে রংপুর রাইডার্সের শেহজাদের হাতে ম্যাচসেরা পুরস্কারও তুলে দেন।

Copyright © 2021 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.