Pre-loader logo

তায়কোয়ান্দোতে ইতিহাস বসুন্ধরা গ্রুপের

তায়কোয়ান্দোতে ইতিহাস বসুন্ধরা গ্রুপের

ক্রীড়াঙ্গনের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক বসুন্ধরা গ্রুপের। দেশের এই শীর্ষ শিল্পপ্রতিষ্ঠানটি সব খেলায় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে। অবকাঠামো নির্মাণেও বড় ভূমিকা রাখছে। বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় ঢাকায় দুবার স্বপ্নের গলফ আসর এশিয়ান ট্যুর অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবার কৌশলের খেলা তায়কোয়ান্দোতে চমক সৃষ্টি করেছে। ওয়ালটন তৃতীয় বাংলাদেশ কাপ আইটিএফ তায়কোয়ান্দো প্রতিযোগিতায় বসুন্ধরা গ্রুপের জয়জয়কার। পুরুষ সিনিয়র বিভাগে ৯ ইভেন্টে ৮ সোনা জিতে বসুন্ধরা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। -৫৩ কেজি জাহিদুল ইসলাম, -৫৮ কেজি আল আমিন, -৬৩ কেজি মো. হারুন, -৬৮ কেজি মো. তানজিল, -৭৮ কেজি মো. হিমেল, -৮৩ কেজি মুকুল, -৮৮ কেজি কামাল ও +৯০ কেজি ইভেন্টে সোনা জেতেন ফজিবুল। একাধিক সোনা জিতে ঘরোয়া তায়কোয়ান্দোয় নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করল বসুন্ধরা গ্রুপ।
সোনা ছাড়াও -৭৩ কেজি মাজেদুল রুপা, -৭৮ কেজি তুষার ও আজাবুল তামা জেতেন। তায়কোয়ান্দোতে বসুন্ধরা গ্রুপের পদকের ছড়াছড়ি। মহিলা বিভাগে অবশ্য অংশ নেয়নি বসুন্ধরা। মেয়েদের ইভেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ওয়ালটন।
বসুন্ধরা গ্রুপ তায়কোয়ান্দো ইনস্ট্রাক্টর মাস্টার সোলায়মান শিকদার দলের এ সাফল্যে দারুণ খুশি। তিনি বলেন, ‘৯ ইভেন্টে ৮ সোনা জিতে তায়কোয়ান্দোতে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছি আমরা। এ সাফল্য ধরে রাখতে চাই। আমাদের লক্ষ্য আগামীতে জাতীয় প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া। বসুন্ধরা গ্রুপ এই খেলার চেহারা পাল্টে দিতে চায়।’ তিনি বলেন, ‘অসম্ভবকে সম্ভব করা গেছে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহানের আন্তরিকতার জন্য। তার অনুপ্রেরণায় তায়কোয়ান্দোতে আমরা দল গঠন করেছি। সব রকমের সুযোগ-সুবিধা তিনি প্রতিযোগীদের দিয়েছেন। আমরা তার কাছে কৃতজ্ঞ।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.