Pre-loader logo

‘শিগগিরই অলংকার ডিজাইন ইনস্টিটিউট গড়ে তোলা হবে’ – কালের কণ্ঠ

‘শিগগিরই অলংকার ডিজাইন ইনস্টিটিউট গড়ে তোলা হবে’ – কালের কণ্ঠ

‘দেশের সবচেয়ে বড় শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি ও বাজুসের চেয়ারম্যান সায়েম সোবহান আনভীরকে ধন্যবাদ জানাই। তিনি আমাদের ডাকে সাড়া দিয়ে বাজুসের চেয়ারম্যান হওয়ার সম্মতি দিয়েছিলেন বলেই আমরা ভোলার মতো জায়গায় দাঁড়িয়ে কথা বলতে পারছি। তাঁর নেতৃত্বে অচিরেই জুয়েলারি শিল্পের উন্নয়নের জন্য অলংকার ডিজাইন ইনস্টিটিউট ও শিল্পীদের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে। ‘

আজ শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে শহরের তৃষ্ণা রেস্টুরেন্টে বাজুস ভোলা জেলা শাখার আয়োজনে মতবিনিময়সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাজুসের স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক্ট মনিটরিং চেয়ারম্যান ডা. দিলীপ কুমার রায় এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘বাজুসের নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে সায়েম সোবহান আনভীর দায়িত্ব নেওয়ার পর এ পর্যন্ত ৪০ হাজার সদস্য সংগ্রহ করা হয়েছে। যা আগে ছিল মাত্র ৮-৯ হাজার। স্বর্ণ ব্যবসার সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকায় দীর্ঘদিন ব্যবসায়ীরা সমস্যায় ছিলেন। বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের একটি নীতিমালা করে দিয়েছেন। তাই তাঁকে ধন্যবাদ জানাই। ‘

বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন ভোলা জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. জাহিদুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বাজুস সহসভাপতি আনোয়ার হোসেন। আরো বক্তব্য দেন কার্যনির্বাহী সদস্য পবিত্র চন্দ্র ঘোষ, বাজুস স্ট্যান্ডিং অন ডিস্ট্রিক্ট মনিটরিং সহ-সম্পাদক ও সদস্যসচিব  মো, জয়নাল আবেদীন খোকন।

মতবিনিময়সভায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান সায়েম সোবহান আনভীরের নেতৃত্বে জুয়েলারি ব্যবসা এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি এ সংগঠনের সদস্যদের কিছু দিতে এসেছেন। তাই প্রতিটি জুয়েলারি মালিককে এ সংগঠনের সদস্য হতে হবে। এককথায় সকলকে এক ছাতার নিচে আসতে হবে। কোনো জুয়েলারি মালিক এ সংগঠনের সদস্য না হলে তাঁদের দায়িত্ব সংগঠন নেবে না। এ ছাড়া কোনো ব্যবসায়ী ক্রেতাদের সঙ্গে প্রতারণা করতে পারবে না। সঠিক দামে সঠিক স্বর্ণ বিক্রি করতে হবে। সততার সঙ্গে ব্যবসা করতে হবে।

বক্তারা আরো বলেন, বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন যখন ঝিমিয়ে পড়েছে ঠিক তখনই আমরা বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরকে এ সংগঠনের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেওয়ার জন্য অনুরোধ করি। তিনি আমাদের অনুরোধে এ দায়িত্ব নিয়েছেন। আশা করি আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকলে তাঁর নেতৃত্বে স্বর্ণশিল্পের ঐতিহ্য ফিরে আসবে।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন এবং উপস্থাপনা করেন বাজুস ভোলা জেলা শাখার সম্পাদক অবিনাশ নন্দী। বক্তব্য  দেন জেলা কমিটির সহসভাপতি গোপিনাথ পোদ্দার প্রমুখ।

 

Source : কালের কণ্ঠ

Copyright © 2022 Sayem Sobhan Anvir.
All Rights Reserved.