Pre-loader logo

পরিবহনে আধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে বসুন্ধরায় গাড়ি মেলা

পরিবহনে আধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে বসুন্ধরায় গাড়ি মেলা

রাজধানীতে পরিবহন খাতে আধুনিক প্রযুক্তিসমৃদ্ধ নতুন গাড়ি ও মোটরসাইকেলের মেলা গতকাল শুরু হয়েছে। কুড়িলে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) তিন দিনব্যাপী এ মোটর শো’তে শুরুর দিনেই আগ্রহী ক্রেতা দর্শকদের ভিড় দেখা গেছে। একযোগে চলছে দেশের মোটরযান শিল্পের তিনটি খাতের প্রদর্শনী ‘১২তম ঢাকা মোটর শো, ৩য় ঢাকা বাইক শো ও ঢাকা ২য় অটোপার্টস শো। সেমস গ্লোবাল আয়োজিত এই প্রদর্শনী চলবে ২৫ মার্চ পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে শুরু করে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে প্রদর্শনী। প্রদর্শনী উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম। জাপান, কোরিয়া, চীন, যুক্তরাষ্ট্র, ইতালি, ভিয়েতনাম, সৌদি আরব, ভারত ও বাংলাদেশের অটোমোটিভ, কার, বাইক ও অটো যন্ত্রাংশ শিল্পের খ্যাতনামা প্রায় ১৮০টি প্রতিষ্ঠান ৩৬০টি স্টলের মাধ্যমে এই আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করছে। যেখানে রয়েছে ব্র্যান্ড নিউ গাড়ি, মোটর বাইক, বাস, ট্রাক, বাণিজ্যিক পরিবহন, লুব্রিকেন্ট, সিএনজি রূপান্তরসহ অটো যন্ত্রাংশের বিশাল সমাহার। বাংলাদেশে দ্রুত প্রসারমান অটোমোটিভ ও অটো-কম্পোনেন্ট খাতকে বেগবান করার লক্ষ্যে আয়োজিত এই প্রদর্শনীতে ক্রেতা, দর্শক ও উদ্যোক্তারা ব্র্যান্ডনিউ গাড়ি, যন্ত্রাংশ, আনুষঙ্গিক উপকরণ ও নতুন নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হতে পারবে। প্রদর্শনীটি মোটর ইন্ডাস্ট্রির জন্য একটি ওয়ান স্টপ প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে যা বাংলাদেশে অটোমোটিভ, বাইক ও অটো যন্ত্রাংশ শিল্পের বাজার সম্প্রসারণে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম।
শুরুর দিনে প্রদর্শনীর বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখা যায়, বিভিন্ন স্টলে আধুনিক প্রযুক্তি সংবলিত গাড়ি, মোটরসাইকেলের বিশাল সমাহার। ক্রেতাদের পাশাপাশি দেশের মোটর শিল্পের উদ্যোক্তারাও ঘুরে ঘুরে দেখছেন স্টল। মোটর সংশ্লিষ্ট শিল্পের বিভিন্ন সরঞ্জাম সম্পর্কে ধারণা দিচ্ছেন স্টল কর্মীরা। ক্রেতারা তাদের পছন্দমাফিক দেশে উৎপাদিত ও সংযোজিত বিভিন্ন কোম্পানির মোটরসাইকেল কিনতে পারবেন। গাড়ি কেনার জন্য ব্যাংক ঋণের সহযোগিতাও করা হচ্ছে মেলায়। এবারের মেলায় বড় আকর্ষণ প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া দর্শনার্থীদের জন্য বিশেষ র‌্যাফেল ড্র। র‌্যাফেল ড্রয়ে দর্শনার্থীরা জিতবেন গাড়ি, মোটরসাইকেল।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এইচ টি ইমাম বলেন, বাংলাদেশ এখন উন্নত দেশের দিকে এগিয়ে চলছে। দেশের বিনিয়োগ খাতে যে অভূতপূর্ব সাড়া রয়েছে এই গাড়ির প্রদর্শনী তার প্রমাণ। দেশের পরিবহন খাতকে এগিয়ে নিয়ে যাবে এই মোটর শো। এর মাধ্যমে আধুনিক প্রযুক্তি মানুষের কাছে পৌঁছাবে। তিনি বলেন, ব্যবসায়ীরা ভালো গাড়ি আমদানি করুন। তাহলে সব ফিটনেসবিহীন গাড়ি বাতিল করা হবে। ঢাকায় বড় ও পাবলিক গাড়ির ব্যবহার বাড়াতে হবে। নতুন সড়ক পরিবহন আইনে ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহারের ক্ষেত্রে সবাইকে সচেতন হতে হবে।
অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মোটরসাইকেল অ্যাসেমব্লার অ্যান্ড মেনুফেকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মতিউর রহমান, র‌্যানকন মোটরবাইকসের সিইও সর্দার মো. খালেদ বিন হাসান, বিক্রয়.কম-এর মার্কেটিং ডিরেক্টর মিসা আলী প্রমুখ।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.