Pre-loader logo

পোশাক রপ্তানি বাড়ছে অপ্রচলিত বাজারেও

পোশাক রপ্তানি বাড়ছে অপ্রচলিত বাজারেও

অপ্রচলিত বাজারেও বাংলাদেশের তৈরি পোশাক খাতের রপ্তানি আয় বাড়ছে বলে জানিয়েছেন এ খাতের উদ্যোক্তারা। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) চার দিনের পোশাক ও বস্ত্র খাতের তিন প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন। প্রধান অতিথি হিসেবে মেলার উদ্বোধন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।
বিগটেক্স ২০১৭, বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল ফ্যাব্রিক অ্যান্ড ইয়ার্ন এক্সপো-২০১৭ এবং বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল ডাইস, পিগম্যান্টস অ্যান্ড কেমিক্যাল এক্সপো-২০১৭ শীর্ষক এ তিন প্রদর্শনী চলবে বৃহস্পতিবার থেকে রবিবার পর্যন্ত।
প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো ছিলেন পোশাক খাতের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ফারুক হাসান, বিকেএমইএ প্রথম সহসভাপতি মনসুর আহমেদ, পোশাক খাতের সংযোগ শিল্পের সংগঠন বিজিএপিএমইএ সভাপতি মো. আব্দুল কাদের খান, ওয়েল গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ নরুল ইসলাম, চায়না টেক্সটাইল মেশিনারি অ্যাসোসিয়েশনের সহ-মহাসচিব জও জিয়াও গ্যাং প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের রপ্তানি পণ্যের বাজার বাড়াতে সরকার বহুমুখী উদ্যোগ নিয়েছে। এ জন্য চামড়া, সিরামিক, আসবাবসহ আটটি পণ্যকে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করছে। এ বছরের বর্ষ পণ্য হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে চামড়াকে। এর মধ্যে নতুন বাজারে রপ্তানি বাড়াতে নগদ প্রণোদনাও দিচ্ছে সরকার।
দেশের পোশাক কারখানাগুলোকে পরিবেশবান্ধব উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশ্বের সেরা পরিবেশবান্ধব কারখানা বাংলাদেশের হলেও এ শিল্প নিয়ে ষড়যন্ত্র থেমে নেই। আমাদের ওপর শ্রমিক অধিকার নিয়ে যত চাপ পৃথিবীর আর কোনো দেশে নেই বলেও জানান তিনি।
বিগটেক্সের মতো বড় প্রদর্শনী বাংলাদেশের পণ্য বহুমুখীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে উল্লেখ করে ফারুক হাসান বলেন, কিছুদিন আগেও অপ্রচলিত বাজারগুলোতে বাংলাদেশ মোট রপ্তানি প্রায় ৭ শতাংশ ছিল, এই আয় বর্তমানে বেড়ে ১৫ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। আর এটা সম্ভব হয়েছে সরকারের নগদ ও নানা প্রণোদনার জন্যে। এ ছাড়া মৌলিক পোশাক রপ্তানি থেকে বের হয়ে বাংলাদেশ স্যুট ও আন্ডার গার্মেন্টসের মতো উচ্চ মূল্যের পণ্যে রপ্তানিতে এগিয়ে যাচ্ছে।
সৈয়দ নরুল ইসলাম দেশের তরুণদের উন্নয়নের অংশীদার উল্লেখ করে তিনি তাঁদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ১৬ কোটি মানুষের বিশাল বাজারে অভ্যন্তরীণ চাহিদা বাড়ছে। এর বিপুল সম্ভাবনা কাজে লাগাতে হবে।
মো. আব্দুল কাদের খান বলেন, পোশাক খাতের সংযোগ শিল্পের ৩০ থেকে ৩৫টি পণ্য দেশে অভ্যন্তরীণভাবে উৎপাদন হয়। এর ফলে দেশে বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয়ের পাশাপাশি পোশাক খাতের লিড টাইম কমাতে সহায়তা করছে এই শিল্প। তাই এ খাতের উন্নয়নে সরকারের নীতিসহায়তা চান তিনি।
মেলায় বাংলাদেশসহ ১২ দেশের পোশাক খাতের যন্ত্রপাতি, কাঁচামাল এবং পণ্য সরবরাহকারীরা অংশগ্রহণ করছে। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে রাত সাড়ে ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.