Pre-loader logo

বসুন্ধরা খাতা-কালের কণ্ঠ জাতীয় স্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা

বসুন্ধরা খাতা-কালের কণ্ঠ জাতীয় স্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা

দেশের পাঁচটি জেলায় গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত হয়েছে বসুন্ধরা খাতা-কালের কণ্ঠ জাতীয় স্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা। কুড়িগ্রাম, চাঁদপুর, নীলফামারী, নাটোর ও রংপুরে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার মাধ্যমে পাঁচটি স্কুল পরবর্তী পর্বের জন্য মনোনীত হয়েছে। কালের কণ্ঠ’র শুভসংঘ আয়োজিত এ বিতর্ক প্রতিযোগিতার পৃষ্ঠপোষকতা করছে বসুন্ধরা খাতা। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদে জানা গেছে বিভিন্ন স্থানে অনুষ্ঠিত বিতর্কে স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের চিত্র। বৃষ্টিসহ প্রাকৃতিক বৈরিতাকে পাশ কাটিয়ে প্রতিযোগীরা যথাসময়ে অবতীর্ণ হয় যুক্তির লড়াইয়ে। জেলা পর্যায় থেকে চ্যাম্পিয়ন স্কুলগুলো পরে বিভাগীয় প্রতিযোগিতায় অংশ নেবে।
কুড়িগ্রামে গতকাল অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কুড়িগ্রাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজে অনুষ্ঠিত এ প্রতিযোগিতায় আটটি স্কুল অংশ নেয়। প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন জেলা মহিলা পরিষদের সভাপতি রওশন আরা চৌধুরী। কালের কণ্ঠ’র জেলা প্রতিনিধি আব্দুল খালেক ফারুকের সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশ নেন কুড়িগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন মণ্ডল, কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জহুরুল হক প্রামাণিক, শিক্ষিকা শামীমা আখতার, সুলতানা আরজুমা হক, শুভসংঘের জেলা সভাপতি খন্দকার খায়রুল আনম, সাধারণ সম্পাদক হারুণ অর রশিদ মিলন প্রমুখ।
চাঁদপুরে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ফরক্কাবাদ উচ্চ বিদ্যালয় দল। রানার্স-আপ হয়েছে ফরিদগঞ্জ এআর মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়। সেরা বক্তা হয়েছে এ দলের নেতা ঐন্দ্রিলা দাস তৃণা। চাঁদপুর সরকারি কলেজের শহীদ রাজু ভবন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় জেলার আটটি স্কুল অংশগ্রহণ করে। কালের কণ্ঠ’র চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধি ফারুক আহম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চাঁদপুর সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক অসিত বরণ দাশ। উপস্থিত ছিলেন সচেতন নাগরিক কমিটি জেলা শাখার সভাপতি কাজী শাহাদাত, সরকারি কলেজ শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. ওয়াহিদুজ্জামান, ফরক্কাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রুহুল আমিন হাওলাদার, শুভসংঘ চাঁদপুর শাখার সাধারণ সম্পাদক সাখওয়াত হোসেন ইমন প্রমুখ।
নীলফামারীতে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পঞ্চপুকুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। রানার্স-আপ হয়েছে ককই বড়গাছা পিসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। নীলফামারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে গতকাল অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতা পরিচালনা করেন নীলফামারী ডিবেট ফেডারেশনের মডারেটর মিজানুর রহমান লিটু। উদ্বোধন করেন নীলফামারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহফুজুল হক। শুভসংঘের জেলা সভাপতি আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন ককই বড়গাছা পিসি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গণপতি রায়, কালের কণ্ঠ’র নীলফামারী প্রতিনিধি ভূবন রায় নিখিল, সাংবাদিক মীর মাহমুদুল হাসান আস্তাক, কালের কণ্ঠ’র বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি ওমর ফারুক প্রমুখ।
রংপুরে আটটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মধ্যে রংপুর জিলা স্কুল বিজয়ী হয়েছে। রানার্স-আপ হয়েছে রংপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। গতকাল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন জিলা স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক সাজেদা বেগম। শুভসংঘ রংপুর জেলার সভাপতি ইরা হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শুভসংঘের উপদেষ্টা রাজ্জাক মুরাদ, বসুন্ধরা খাতার রংপুর এরিয়া ম্যানেজার জিয়াউর রহমান, কালের কণ্ঠ রংপুর অফিসপ্রধান স্বপন চৌধুরী প্রমুখ।
নাটোরে গতকাল অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তেবাড়ীয়া উচ্চ বিদ্যালয়। রানার্স-আপ হয়েছে নাটোর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়। প্রতিযোগীরা গতকাল তুমুল বর্ষণের মাঝে নির্ধারিত সময়েই পৌঁছে যায় নাটোর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে। পরে তাদের পুরস্কৃত করেন নাটোর স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক গোলাম রাব্বি ও জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (উচ্চ মাধ্যমিক) রমজান আলী আকন্দ। উপস্থিত ছিলেন দিঘাপতিয়া এমকে কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক, নাটোর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খগেন্দ্র নাথ রায়, আলী আকমল বাপ্পী, ভাস্কর বাগচি, পরিতোষ অধিকারী প্রমুখ।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.