Pre-loader logo

বসুন্ধরা সিটি ফের প্রাণচঞ্চল

বসুন্ধরা সিটি ফের প্রাণচঞ্চল

রাজধানীর পান্থপথে অবস্থিত দেশের সবচেয়ে ব্যস্ততম ও আকর্ষণীয় বিপণিবিতান বসুন্ধরা সিটি শপিং মল খুলেছে। গতকাল দুপুর ১২টায় মার্কেটটি ক্রেতা-দর্শনার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হয়। আর বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গেই ক্রেতা-দর্শনার্থীর সমাগম শুরু হয়। বিশাল কলেবরের বিপণিবিতানটির ষষ্ঠ তলার সি ব্লকে একটি দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সংস্কার ও নিরাপত্তাজনিত কাজের জন্য কয়েক দিন এটি বন্ধ ছিল।
বসুন্ধরা সিটি শপিং মল কর্তৃপক্ষ জানায়, গতকাল থেকে যথারীতি মার্কেটটি খোলা রাখা হচ্ছে। তবে আগুনে ভবনের ষষ্ঠ তলার সি ব্লক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় সেখানে কিছু জায়গায় এখনো সংস্কারকাজ চলছে। এ কারণে মার্কেটের ষষ্ঠ তলা ও সপ্তম তলার সি ব্লক আপাতত বন্ধ রয়েছে। এ ছাড়া গতকাল অষ্টম তলার ফুডকোর্টে পরিষ্কারের কাজ চলায় সেখানে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। তবে আজ থেকে ফুডকোর্ট সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। বসুন্ধরা সিটি ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের হেড অব মার্কেটিং এম এম জসিম উদ্দিন গতকাল জানান, ‘রাজধানীসহ সারা দেশের মানুষেরই সবচেয়ে পছন্দের শপিং মল হলো বসুন্ধরা সিটি। এখানে সব সময়ই ভিড় থাকে। অগ্নিকাণ্ডের কারণে কয়েক দিন বন্ধ থাকার পর এটি খুলেছে। মার্কেট চালুর খবরটি অনেকে হয়তো এখনো জানেন না। আশা করা হচ্ছে, ঈদ সামনে রেখে আগের মতোই বসুন্ধরা সিটি জমে উঠবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘ফুডকোর্টে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজ চলায় গতকাল সেটি বন্ধ ছিল। আজ ফুডকোর্টও চালু হবে। শুধু সংস্কারকাজের জন্য লেভেল সিক্স ও সেভেনের সি ব্লকটি বন্ধ থাকবে।’ বসুন্ধরা সিটি ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার মেজর (অব.) মোল্লাহ মুস্তাক রেজা জানান, প্রয়োজনীয় সংস্কারকাজ শেষে শিগগিরই লেভেল ছয় ও সাতের সি ব্লকটি খুলে দেওয়া হবে। যারা বসুন্ধরার প্রতি আস্থা রেখে এতদিন এ মার্কেটে কেনাকাটা করেছেন তারা আগের মতোই নিরাপদে সব সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।
সরোজমিনে দেখা গেছে, আগের মতোই কেনাকাটা করতে এবং ঘুরতে আসছেন দর্শনার্থীরা। মিরপুর থেকে কসমেটিকস ও সন্তানের কাপড় কিনতে এসেছিলেন গৃহবধূ সাজেদা রহমান। তিনি বললেন, ‘আমি সব সময় এখানেই শপিং করি।’

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.