Pre-loader logo

বসুন্ধরা সিটি শপিংমল বন্ধে প্রশংসার ঝড়

বসুন্ধরা সিটি শপিংমল বন্ধে প্রশংসার ঝড়

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে সরকারের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিভিন্ন মার্কেট ও শপিংমল খোলার অনুমতি দিলেও খুলছে না বসুন্ধরা সিটি শপিংমল। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থাকায় বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান শপিংমলটি না খোলার সিদ্ধান্ত নেন। আর এই সিদ্ধান্ত এখন বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসার জোয়ারে ভাসছে।

বৃহস্পতিবার (০৭ মে) বিকেল পর্যন্ত বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের পোস্ট এবং সংবাদমাধ্যমগুলোর এই সংবাদটি সম্পর্কে পাঠকের মন্তব্য প্রমাণ করে তেমনই।

বসুন্ধরা সিটি শপিংমল না খোলার এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়ে রাশেদ মোশাররফ মামুন নামে একজন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘বসুন্ধরা একটি সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই সময়ে শপিংমলে খুব বেশি বেচা-কেনাও হবে না। প্রথমত, অনেকের হাতে টাকা নেই। দ্বিতীয়ত, যাদের কাছে টাকা আছে, তারাও কতটুকু করোনার ঝুঁকি নিয়ে কেনাকাটা করবে, সেটিও ভাববার বিষয়। তাই বেশি তাড়াহুড়ো না করে সময় নিয়ে অর্থনীতি চালু করলে এসব ক্ষতি মধ‍্যম সময়ের মধ‍্যেই আমরা পুষিয়ে নিতে পারব। কিন্তু অতিরিক্ত তাড়াহুড়ো করে সব খুলে দিলে মৃত্যু ও আক্রান্ত ব‍্যাপকভাবে বেড়ে অর্থনীতি একেবারে অচল করলে, তা রিকভারি করা হবে অনেক কঠিন।’

মো. আব্দুল মোমিন নামে একজন লিখেছেন, ‘বসুন্ধরা বা যমুনা ফিউচার পার্কে কেনাকাটা তুলনামূলক স্বাস্থ্যবিধি মেনে কিছুটা হলেও সম্ভব ছিল। তারপরও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তে বসুন্ধরা কর্তৃপক্ষকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। বর্তমান অবস্থা যে দিকে এগিয়ে চলেছে, সেটা বিবেচনায় অন্যরাও সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নেবে বলে আমরা সাধারণ জনগণ মনে করি।’

এছাড়া ইকবাল হোসেন, লিজা মিত্র এবং আব্দুল জলিল মুন্না নামের ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষকে অসংখ্য ধন্যবাদ। বসুন্ধরা সিটি শপিংমল কর্তৃপক্ষকে সাধুবাদ জানাই। পরিস্থিতি বিবেচনায় প্রায় সব মার্কেটেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত। বসুন্ধরা সিটি শপিংমলকে যদি অন্য মার্কেটগুলো অনুসরণ করে, তাহলে বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে শিগগিরই।

এদিকে, শুধু সোস্যাল মিডিয়ায়ই নয়, বসুন্ধরা শপিংমল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তের খবর বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর সেসব সংবাদের পক্ষে প্রশংসনীয় মন্তব্যও করছেন পাঠকরা। বাংলানিউজের ফেসবুক পেজে সংবাদটি শেয়ার করা হলে কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পাঁচ শতাধিক পাঠক এ বিষয়ে মন্তব্য করে ধন্যবাদ এবং প্রশংসা জানিয়েছেন বসুন্ধরা গ্রুপকে। একই অবস্থা অন্যান্য গণমাধ্যমেও।

মো. সাইফুজ্জামান নামে একজন সংবাদটিতে মন্তব্য করেন, ‘এতগুলো খবরের মাঝে এই একটা খবর পড়ে মনে একটু শান্তি হলো। খুবই ভালো সিদ্ধান্ত।’

মো. সাজ্জাদুর রহমান এবং এনায়েত চৌধুরী নামে দু’জন মন্তব্য করেছেন, ‘Good decision taken by বসুন্ধরা চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান। তিনি বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়েছেন।’

এছাড়া ইমতিয়াজ আলী, ইমন, আবুল কালাম আজাদ নামের পাঠকরা তাদের মন্তব্যে বলেছেন, ‘ভাল সিদ্ধান্ত তবে মালিকের! বসুন্ধরা গ্রুপের বিবেক আমাদের সরকারের চেয়ে বেশি। এতটুকু বিবেচনা সরকারেরও থাকা উচিত ছিল।’

এর আগে শপিংমল থেকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থাকায় বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান শপিংমলটি না খোলার সিদ্ধান্ত নেন।

এ ব্যাপারে বসুন্ধরা গ্রুপের উপদেষ্টা আবু তৈয়ব জানান, বসুন্ধরা সবসময় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করে থাকে। মানবতার কথা চিন্তা করেই বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। করোনা ভাইরাস মহামারির শুরু থেকেই তিনি মানুষের পাশে আছেন। শপিংমল না খোলা তার আরেকটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.