Pre-loader logo

বসুন্ধরা সিমেন্টের রাজমিস্ত্রি কর্মশালা শরীয়তপুরে

বসুন্ধরা সিমেন্টের রাজমিস্ত্রি কর্মশালা শরীয়তপুরে

নির্মাণশিল্পীদের দক্ষতা ও সচেতনতা এগিয়ে নিতে এক নির্মাণ কর্মশালার আয়োজন করেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্প গোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা সিমেন্ট। শরীয়তপুর জেলা সদরে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় শতাধিক রাজমিস্ত্রি অংশ নেন।
সিমেন্টশিল্পে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ উৎপাদনক্ষম আধুনিক কারখানা রয়েছে একমাত্র বসুন্ধরা সিমেন্টের। বর্তমানে দেশের সবচেয়ে বেশি সিমেন্ট (৫.০৫ মিলিয়ন টন) উৎপাদন করছে প্রতিষ্ঠানটি। উৎপাদন প্রক্রিয়ায় ব্যবহৃত হচ্ছে জার্মান প্রযুক্তি ভিআরএম, যা সিমেন্টের সূক্ষ্মতা বাড়িয়ে দেয় এবং স্থাপনার দীর্ঘস্থায়ী শক্তির নিশ্চয়তা দেয়। বসুন্ধরা সিমেন্ট কাঁচামাল সংগ্রহ থেকে শুরু করে উৎপাদনের প্রতিটি ধাপে স্বয়ংক্রিয় কম্পিউটারাইজড প্রযুক্তি অনুসরণ করে। কর্মশালায় বসুন্ধরা সিমেন্টের অন্যতম মূল উপাদান স্ল্যাগের বিশেষত্ব উপস্থাপন করা হয়। স্ল্যাগ সিমেন্ট ও কংক্রিটের দীর্ঘস্থায়ী শক্তি অর্জনে সহায়ক, ফলে বসুন্ধরা সিমেন্টের ২৮ দিনের কম্প্রেসিভ স্ট্রেংথ তুলনামূলকভাবে অন্যান্য সিমেন্টের চেয়ে বেশি। স্ল্যাগ ক্ষতিকর সালফার ও ক্লোরাইড প্রতিরোধক। ফলে বসুন্ধরা সিমেন্ট সালফার/ক্লোরাইড রেজিস্ট্যান্স সিমেন্ট হিসেবে ব্যবহার করা যায়।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এরিয়া সেলস ম্যানেজার, বসুন্ধরা সিমেন্ট, শরীয়তপুর শেখ মো. সেলিম, প্রজেক্ট সার্ভিস ইঞ্জিনিয়ার, বসুন্ধরা সিমেন্ট, শরীয়তপুর মো. সালাউদ্দিন, টেকনিক্যাল সাপোর্ট ইঞ্জিনিয়ার মো. তৌফিকুল ইসলাম, মেসার্স বিসমিল্লাহ এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী হাজি মো. হাফিজ উদ্দিন মরণ ব্যাপারী এবং মেসার্স ঘোষ এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী রামকৃষ্ণ ঘোষসহ বসুন্ধরা সিমেন্টের অন্য কর্মকর্তারা।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.