Pre-loader logo

বাজুসের মেলায় পুরস্কার পেলেন ১৯ সাংবাদিক

বাজুসের মেলায় পুরস্কার পেলেন ১৯ সাংবাদিক

বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাজুস) আয়োজিত মেলায় সংবাদ সংগ্রহ করতে এসে জুয়েলারি এক্সপো-২০২২ র‌্যাফল ড্রতে পুরস্কার পেয়েছেন ১৯ গণমাধ্যমকর্মী। তিন দিনব্যাপী মেলা শেষে শনিবার রাতে সমাপনী অনুষ্ঠানে এ র‌্যাফল ড্র অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় গণমাধ্যমকর্মীদের হাতে এসব পুরস্কার তুলে দেয় মেলা কর্তৃপক্ষ। রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরার ২ নম্বর হলে ব্যাপক জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো তিন দিনের বাংলাদেশ জুয়েলারি এক্সপো-২০২২।

র‌্যাফল ড্রতে এক লাখ টাকা করে তিনজন, ৫০ হাজার টাকা একজন, ৩০ হাজার টাকা একজন, ২৫ হাজার টাকা চারজন, ২০ হাজার টাকা সাতজন, ১৫ হাজার টাকা একজন ও ১০ হাজার টাকা দুজন করে মোট ১৯ জন সংবাদকর্মী পান এ পুরস্কার। দেশে প্রথমবারের মতো বাজুসের এ মেলা অনুষ্ঠিত হলো।

পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্যে দৈনিক আজকালের খবরের সাইয়েদ হোসেন খান পান এক লাখ টাকা, ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের অনুসন্ধানী টিমের প্রধান ও কালের কণ্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি হায়দার আলী পান এক লাখ টাকা, আনন্দ টেলিভিশনের আলী আহমেদ পান এক লাখ টাকা, যমুনা টেলিভিশনের সিনিয়র ভিডিও জার্নালিস্ট মোহাম্মাদ মাসুম খান ৫০ হাজার টাকা, ন্যাশনাল টাইমসের এস আর হোসেন চৌধুরী খালেদ ৩০ হাজার টাকা, একুশে টিভির মির্জা মোহাম্মাদ আব্দুর রাজ্জাক ২৫ হাজার টাকা, আমাদের সময়ের জাহিদুল ইসলাম ২৫ হাজার টাকা, আরটিভির মোহাম্মাদ আশিকুল আলম ২৫ হাজার টাকা, বাংলানিউজের শাহেদ আলী এরশাদ ২৫ হাজার টাকা, কালের কণ্ঠের মাসুদ আলম ২০ হাজার টাকা, স্বাধীন বাংলা পত্রিকার জাফরান আকন্দ ২০ হাজার টাকা, বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রধান প্রতিবেদক মঞ্জুরুল ইসলাম ২০ হাজার টাকা, নিউজটোয়েন্টিফোর টেলিভিশনের ক্যামেরাম্যান আসাদুজ্জামান কানন ২০ হাজার টাকা, নিউজটোয়েন্টিফোর টেলিভিশনের প্রতিবেদক মোহাম্মাদ হাবিবুল্লাহ পেয়েছেন ২০ হাজার টাকা।

এ ছাড়াও বাংলাদেশ প্রতিদিনের শফিকুল ইসলাম সোহাগ পান ২০ হাজার টাকা, নিউজটোয়েন্টিফোরের প্রতিবেদক রতন দাস ২০ হাজার টাকা, বৈশাখী টেলিভিশনের তারেক হোসেন শিকদার ১৫ হাজার টাকা, বাংলাদেশ সমাচারের আফরুজা সুলতানা ১০ হাজার টাকা ও নিউজটোয়েন্টিফোরের প্রতিবেদক কামরুল হোসেন পান ১০ হাজার টাকা।

ফ্যাশন শো, র‌্যাফল ড্র অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সায়েম সোবহান আনভীর, সেক্রেটারি দিলীপ কুমার আগরওয়ালা, ট্রেজারার ও মেলা কমিটির চেয়ারম্যান উত্তম বণিক প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ফ্যাশন শোতে অংশ নেয় অলংকার নিকেতন, আপন জুয়েলার্স, ফেন্সি জুয়েলার্স, জায়া গোল্ড ও জরোয়া হাউস। তিন দিনের জুয়েলারি এক্সপোতে সেরা স্টলের পুরস্কার পেয়েছে আমিন জুয়েলার্স, জরোয়া হাউস, পার্ল ওয়েসিস, ড্রিমস ইনস্ট্রুমেন্ট টেক, গোল্ডেন ওয়ার্ল্ড। এক্সপোতে মোট ৬৫টি স্টল অংশ নিয়েছিল। দেশ-বিদেশের ক্রেতা-বিক্রেতারা এতে অংশ নেন। এক্সপোর মাধ্যমে দেশের স্বর্ণশিল্পীদের হাতে গড়া নিত্যনতুন ডিজাইনের অলংকারের পরিচিতি ঘটেছে বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

 

Source : কালের কণ্ঠ

Copyright © 2022 Sayem Sobhan Anvir.
All Rights Reserved.