Pre-loader logo

বিসিবি ১২ বছরেও সুযোগ দেয়নি, তবুও হাল ছাড়ছেন না মোহাম্মদ রফিক

বিসিবি ১২ বছরেও সুযোগ দেয়নি, তবুও হাল ছাড়ছেন না মোহাম্মদ রফিক

স্পোর্টস ডেস্ক:: বাংলাদেশের স্পিন ‘কিংবদন্তী’ মোহাম্মদ রফিক। দেশের সেরা, তথা বিশ্ব স্পিনারদের মধ্যে অন্যতম একজন এই রফিক বাইশ গজের ক্রিকেট ছেড়ে থাকতে চেয়ে ছিলেন ক্রিকেটের সঙ্গেই। বিসিবিতে কোচের চাকরি প্রত্যাশা করেছিলেন। অনেকের কাছেই অনুরোধও করেছেন।

কিন্তুু অজানা কোনো এক কারণে বিসিবি মোহাম্মদ রফিককে কোচের চাকরি দেয়নি। এক যুগ অপেক্ষা করছেন, শেষ বেলায় তাই আর অপেক্ষা করছেন না। বিসিবির সঙ্গে কোচ হয়ে কাজ করার আশা ছেড়ে দিয়েছেন তিনি। তবুও হাল ছাড়ছেন না। একটি প্রাইভেট ক্রিকেট একাডেমির হয়ে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছেন। আপাতত স্বপ্ন বুনছেন সেই প্রাইভেট একাডেমি নিয়ে।

দেশের ধনাঢ্য শিল্প গোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ ক্রিকেট একাডেমি করতে যাচ্ছে। নিজস্ব ক্রিকেট স্টেডিয়ামও তৈরি করবে গ্রুপটি। আর সেই একাডেমিতে শুভেচ্ছা দূত হিসেবে মোহাম্মদ রফিককে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তিনিও তাতে রাজি হয়েছেন। নটআউট নোমানে লাইভে এসে এসব কথা বলেছেন তিনি।

এক যুগেও বিসিবি কোচ হিসেবে কাজের সুযোগ দেয়নি জানিয়ে মোহাম্মদ রফিক বলেন ‘সত্যি কথা কি! ১২ বছর হয়ে গেল, বিসিবিতে কিছু হলো না। জানি না আল্লাহ কত দিন হায়াত দিবেন। এখন আমি এ বছর শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের কোচ হিসেবে কাজ করছি, নিজে ‘ফ্রাইডে ক্রিকেট’ খেলছি।’

বসুন্ধরার ক্রিকেট একাডেমিতে কাজ করবেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বসুন্ধরা একটি বড়সড় প্রকল্প হাতে নিয়েছে। বসুন্ধরার মালিক শাহ আলম সাহেবের ছেলের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি আমাকে বলেছেন, তারা নিজ উদ্যোগে একটি স্টেডিয়াম নির্মাণ করবেন। একটি ক্রিকেট একাডেমিও তৈরি করা হবে। পাশাপাশি ইশতিয়াকের সঙ্গেও কথা হয়েছে। তারা আমাকে জানিয়েছেন, আমরা এখানে একাডেমি করব, তাতে আপনি শুভেচ্ছাদূত হিসেবে থাকবেন। আজীবন কাজও করে যাবেন নিজের মত করে। আমি তাদের প্রস্তাব পেয়ে খুব খুশি। সানন্দে রাজি হয়েছি। কারণ অনেক দিন তো হলো, ১২ বছর পার করে ফেললাম। বোর্ডে কোচের চাকরির আশা ছেড়ে দিয়েছি। এখন আগামীতে বসুন্ধরার ক্রিকেট একাডেমি কেন্দ্রিক চিন্তা ভাবনাই করছি। বসুন্ধরার ঐ ক্রিকেট একাডেমি নিয়েই স্বপ্নের জাল বুনছি।’

Copyright © 2021 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.