Pre-loader logo

মানবাধিকার পদক ও সম্মাননা পেলেন বসুন্ধরা গ্রুপ চেয়ারম্যান – বাংলাদেশ প্রতিদিন

মানবাধিকার পদক ও সম্মাননা পেলেন বসুন্ধরা গ্রুপ চেয়ারম্যান – বাংলাদেশ প্রতিদিন

বাংলাদেশের আর্থসামাজিক অগ্রগতির ক্ষেত্রে বিশেষ করে করোনাকালে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান ‘মানবাধিকার পদক ও সম্মাননা’ পেয়েছেন।

গতকাল রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে ব্যুরো অব হিউম্যান রাইটস বাংলাদেশ (বিএইচআরবি) এ সম্মাননা প্রদান করে। এসময় আরও পাঁচ ব্যক্তি ও চার প্রতিষ্ঠানকে পদক ও সম্মাননা দেওয়া হয়। করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসায় ৫ হাজার শয্যার হাসপাতাল নির্মাণ, বিনামূল্যে গরিব ও অসহায় মানুষের মধ্যে খাবার বিতরণসহ স্বাস্থ্যসেবায় অবদান রাখায় বসুন্ধরা গ্রুপকে সম্মাননা দেওয়া হয়।

বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যানের পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের পরিচালক ও কালের কণ্ঠের প্রধান সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন।

পদক ও সম্মাননা পাওয়া অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, দৈনিক প্রথম আলো, বেক্সিমকো ফার্মা ও জেএমআই গ্রুপ।

এ ছাড়া বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, হোটেলস ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. আমিনুর রহমান, মানিকগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. রমজান আলী এবং কণ্ঠশিল্পী ও সমাজকর্মী তাসরিফ খান সম্মাননা পান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, করোনাকালে যারা আর্তমানবতার সেবায় কাজ করেছেন তাদের খুঁজে বের করে ব্যুরো অব হিউম্যান রাইটস বাংলাদেশ (বিএইচআরবি) সংগঠনটি পদক ও সম্মাননা দিয়েছে। আমি তাদের ধন্যবাদ জানাই। যে ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান আজকে পদক ও সম্মাননা নিলেন সবাই দেশের আলোকিত এবং সম্মানী মানুষ। এই মানুষ ও প্রতিষ্ঠানগুলোর মতো আমাদেরও দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কাজ করতে হবে।

ইমদাদুল হক মিলন বলেন, আমি বসুন্ধরা গ্রুপের সম্মানিত চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের পক্ষ থেকে এই পদক ও সম্মাননা গ্রহণ করেছি।

তিনি বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় এবং দেশের আর্থসামাজিক ক্ষেত্রে যে কাজ করে সেগুলোর অধিকাংশের খবর আমরা রাখি না। গ্রুপের চেয়ারম্যান দেশ ও মানবতার জন্য যে অবদান রাখছেন তা বলতে গেলে কমপক্ষে এক ঘণ্টা সময় লাগবে। শুধু এইটুকু বলি, বসুন্ধরা গ্রুপের স্লোগান হচ্ছে দেশ এবং মানুষের কল্যাণে। তিনি প্রকৃত অর্থেই দেশ এবং মানুষের কল্যাণে কাজ করছেন। বসুন্ধরার মতো যদি দেশের অন্য শিল্প গ্রুপগুলোও মানুষের জন্য, দেশের জন্য কাজ করে তাহলে এ দেশ পৃথিবীর সবচেয়ে আলোকিত দেশ হবে।

বিএইচআরবি সভাপতি সাবেক বিচারপতি আবু বকর সিদ্দীক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। পদক ও সম্মাননা প্রদান শেষে ‘রক্তস্নাত বিজয়ের মাধ্যমে অর্জিত মানবাধিকারের এগিয়ে চলার পাঁচ দশক’ শীর্ষক এক আলোচনা সভাও অনুষ্ঠিত হয়। এতে মূল নিবন্ধ উপস্থাপন করবেন সাউথ এশিয়ান ফ্র্যাটার্নিটি (সাফ), বাংলাদেশের সভাপতি ও গ্লোবাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের প্রেস অ্যান্ড মিডিয়া উপদেষ্টা মোহাম্মদ আবু তৈয়ব।

বিএইচআরবি প্রতিষ্ঠাতা ও মহাসচিব ড. মো. শাহজাহান জানান, বিএইচআরবি পদক ও সম্মাননা প্রদানের জন্য গঠিত নির্বাচনী বোর্ড ‘ব্যক্তি’ ক্যাটাগরিতে পাঁচজনকে এবং ‘প্রাতিষ্ঠানিক’ ক্যাটাগরিতে পাঁচটি প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কৃত করেছে। এসব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে এবং মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। সম্মাননা দেওয়ার ক্ষেত্রে করোনাকালে তাঁদের কর্মকান্ড বিশেষভাবে বিবেচিত হয়েছে।

 

Source : বাংলাদেশ প্রতিদিন

Copyright © 2023 Sayem Sobhan Anvir.
All Rights Reserved.