Pre-loader logo

মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের অবকাঠামোর উন্নয়ন হবে পিপিপি পদ্ধতিতে

মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের অবকাঠামোর উন্নয়ন হবে পিপিপি পদ্ধতিতে

সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বের (পিপিপি) পদ্ধতিতে মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল উন্নয়নে পাওয়ারপ্যাক-ইষ্ট ওয়েষ্ট-গ্যাসমিন কনসোটিয়ামকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে গতকাল রাজধানীর একটি হোটেলে ‘লেটার অব অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী। প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) মো. আবুল কালাম আজাদ বলেন, মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে আগামী ২০১৮ হতে শিল্প উত্পাদনে যেতে পারে সে লক্ষ্যে নির্বাচিত ডেভেলপার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করবে। মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল হবে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু যার জন্য সরকার সমন্বিত উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জ্বালনি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব নাজিম উদ্দিন চৌধুরী এবং বেপজার চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মোহা. হাবিবুর রহমান। সভাপতির বক্তব্যে পবন চৌধুরী বলেন, দ্রুততম সময়ের মধ্যে নির্বাচিত ডেভেলপার প্রয়োজনীয় কার্যাদি সম্পন্ন করে মূল চুক্তি করা সম্ভব হবে এবং আগ্রহী বিনিয়োগকারিগণকে প্রয়োজনীয় জমি বরাদ্দ দিয়ে উত্পাদনে যাওয়া যাবে। বেজা ইতোমধ্যে সুপেয় পানি সরবরাহ লাইন, বিদ্যুত্ সংযোগ ও সংযোগ সড়ক উন্নয়নের কাজ প্রায় শেষ করেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। পাওয়ারপ্যাক-ইষ্ট ওয়েষ্ট-গ্যাসমিন কনসোটিয়ামের পক্ষে মাহাবুবুর রহমান বলেন, বেজা কর্তৃপক্ষের সাথে সমন্বয় করে সমস্ত কার্যাদি বাস্তবায়ন করা হবে যাতে ২০১৮ সালের মধ্যে বিনিয়োগকারীগণ ব্যবসা শুরু করতে পারেন।
এদিকে গতকাল একই স্থানে মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের অভ্যন্তরে ১৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুত্ কেন্দ্র স্থাপনে বেজা বাংলাদেশ বিদ্যুত্ উন্নয়ন বোর্ড, রুরাল পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেডকে ১৬ একর জমি প্রদানে সমঝোত স্বারক স্বাক্ষরিত হয়। প্রাথমিক পর্যায়ে ১৫ মাসের মধ্যে ডুয়েল ফুয়েল বিদ্যুত্ কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে। এতে প্রায় ১৫ কোটি ডলার ব্যয় হবে। বেজার পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ আইয়ুব ও বিপিডিসি-আরপিসিএল পাওয়ারজেন লিমিটেডের পক্ষে রুরাল পাওয়ার কোম্পনি লিমিটেরে ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আব্দুস সবুর।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.