Pre-loader logo

রংপুর রাইডার্সের শিরোপা উদ্‌যাপন

রংপুর রাইডার্সের শিরোপা উদ্‌যাপন

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার ‘চেয়ারম্যানস হাউস’ হয়ে উঠেছিল এক টুকরো রংপুর। রংপুর রাইডার্সের বিপিএল শিরোপা জয়ের আনন্দে বসুন্ধরা গ্রুপে কর্মরত হাজারো সমর্থক ‘রংপুর, রংপুর’ স্লোগানে মাতোয়ারা তখন। সঙ্গে ব্যান্ড পার্টির বাজনায় পরিবেশটা হয়ে উঠেছিল উৎসবমুখর। স্নিগ্ধ বিকেলে দলের স্বত্বাধিকারী ও বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফওয়ান সোবহান ট্রফি নিয়ে বের হতেই উৎসবের মাত্রাটা বাড়ে আরো। দেশের শীর্ষ শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের হাজারো কর্মকর্তা-কর্মচারীর এই উদ্‌যাপনের মধ্যমণি হয়েছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন সাফওয়ান সোবহানের স্ত্রী ও বসুন্ধরা গ্রুপের পরিচালক ইয়াশা সোবহান, তাঁদের মেয়ে র‌্যানিয়া সোবহান ও ছেলে সেজাত সোবহান।
চেয়ারম্যানস হাউসে তৈরি মঞ্চের পেছনে ব্যানারে লেখা ‘কনগ্র্যাচুলেশনস চ্যাম্পিয়ন’। প্রমাণ সাইজের কেকে আঁকা ছিল রংপুর রাইডার্সের লোগো ও স্লোগান—‘জয়ের লড়াই’। ফাইনালে ঢাকা ডায়নামাইটসকে ৫৭ রানে হারিয়ে শেষ হয়েছে সেই ‘জয়ের লড়াই’। এবার উদ্‌যাপনের পালা। ‘ভিক্টরি চিহ্ন’ দেখিয়ে ট্রফি নিয়ে সাফওয়ান সোবহান ‘চ্যাম্পিয়ন’ বলতেই সমথর্ককরা চ্যাম্পিয়ন,চ্যাম্পিয়ন ধ্বনিতে তখন বাঁধনহারা। প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আনন্দটা স্ত্রী-সন্তান নিয়ে কেক কেটে উদ্‌যাপন করলেন সাফওয়ান সোবহান। এরপর সিক্ত হয়েছেন ফুলেল শুভেচ্ছায়। আনন্দের রেশ ছিল অবশ্য আগের রাতজুড়েই। বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় চলছিল খণ্ড খণ্ড মিছিল। তবে শিরোপা জয়ের উৎসব বসুন্ধরায় সীমাবদ্ধ না রেখে ব্যাপকতা আনতে চান সাফওয়ান সোবহান। এ জন্যই জানালেন রংপুর শহরে ট্রফি নিয়ে গিয়ে আনন্দটা ভাগাভাগি করে নিতে চান তিনি, ‘রংপুরের মানুষকে স্বপ্ন দেখিয়েছিলাম আমরা। সেটা পূরণ হয়েছে। রংপুর শহরে ট্রফিটা নিয়ে সবার সঙ্গে আনন্দটা ভাগাভাগি করতে চাই আমরা।’
পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থ দল হিসেবে সুপার ফোর নিশ্চিত করেছিল রংপুর রাইডার্স। সেখানে এলিমিনেটরে খুলনা, কোয়ালিফায়ারে কুমিল্লা আর ফাইনালে ঢাকার মতো শক্তিশালী দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়াটা অভূতপূর্ব মনে হচ্ছে সাফওয়ান সোবহানের, ‘খুবই অপ্রত্যাশিত ছিল এটা। হাঁটি হাঁটি পা পা করে এগিয়েছি আমরা। তবে একবার শিরোপা জিতে থেমে থাকতে চাই না। দল নিয়ে বড় পরিকল্পনা আছে আমাদের।’ টুর্নামেন্টের শুরুটা ভালো না হলেও ঠিক সময়ে জ্বলে উঠে মাশরাফি,গেইল,ম্যাককালামরা প্রথমবার শিরোপা এনে দিলেন রংপুরকে। খেলোয়াড়দের ওপর এই বিশ্বাসটা শুরু থেকে ছিল সাফওয়ান সোবহানের, ‘শুরু থেকে সবার ওপর বিশ্বাস ছিল আমাদের। প্রথমবার বিপিএলের দল গড়ে শিখেছি অনেক কিছু। ভবিষ্যতে কাজে লাগবে এটা।’ এমন খুশির মাঝেও উজ্জ্বল আগামী নিয়ে ভাবতে পারে যে দল,তারা তো শিরোপা ধরে রাখার দাবিদার হয়েই ফিরবে বিপিএলে।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.