Pre-loader logo

শেখ জামালের জয়ের দিনে রাসেলের ড্র

শেখ জামালের জয়ের দিনে রাসেলের ড্র

ফেনী সকারকে ২-১ গেলে হারিয়েছে শেখ জামাল ধানমণ্ডি। শেখ রাসেল ও বিজেএমসির মধ্যে দিনের অন্য ম্যাচটি ড্র হয়েছে ১-১ গোলে। জয়ের সুবাদে শেখ জামাল ১৬ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে এক ম্যাচ কম খেলা চট্টগ্রাম আবাহনীর সঙ্গে দ্বিতীয় স্থানে আছে। ড্র করে রাসেল ১৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে।
চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে প্রথম ম্যাচে শেখ জামাল ধানমণ্ডির আধিপত্য থাকলেও ২৫ মিনিটে ফেনী সকার এগিয়ে যায় মহিবুল ইসলামের গোলে। সাদ্দামের বাড়ানো বলে মহিবুলের শট ডিফেন্ডার ইয়াসিনের পায়ে লেগে গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে পৌঁছে যায় জামালের জালে। পিছিয়ে পড়া দলকে টেনে তুলেছেন তাদের দুই বিদেশি এমেকা ডারলিংটন ও ল্যান্ডিং দারবোয়ে। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে ল্যান্ডিংয়ের কাটব্যাকে নাইজেরিয়ান এমেকা গোল করে ম্যাচে ফেরান দলকে। এরপর দুজনে মিলে শুরু হয় এগিয়ে যাওয়ার প্রচেষ্টা। ৬৮ মিনিটে চমত্কার এক সুযোগ নষ্ট করেন ল্যান্ডিং ক্রসবারের ওপরে মেরে। তবে ৭৬ মিনিটে এই গাম্বিয়ান মিডফিল্ডার বক্সের ভেতর কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করে শেখ জামালকে উপহার দিয়েছেন নবম জয়। আর ১০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় তলানিতে থাকা ফেনী সকার পড়েছে রেলিগেশনের ভয়ে।
দিনের অন্য ম্যাচে শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র গোল করে এগিয়ে গিয়েও শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে পারেনি লিড। অথচ চট্টগ্রাম আবাহনীর মতো দলের সঙ্গে ড্র করার পর রাসেল গত ম্যাচে ফেনীর বিপক্ষে দুর্দান্ত জয় পেয়েছে ৩-১ গোলের। সেই দল গতকাল ৭২ মিনিটে ক্যামেরুনের ইকাঙ্গার গোলে এগিয়ে যায়। এরপর ম্যাচের বাকি থাকে মাত্র ১৮ মিনিট। কিন্তু শেষ বাঁশির মাত্র দুই মিনিট আগে তালগোল পাকিয়ে ফেলেন ডিফেন্ডার মিন্টু শেখ ও গোলরক্ষক বিপ্লব ভট্টাচার্য্য। মিন্টু শেখ বল ক্লিয়ার না করে ছেড়ে দিয়েছেন গোলরক্ষকের জন্য। বিপ্লব ছুটে আসার আগেই বিজেএমসির স্যামসন ইলিয়াসু ছোঁ মেরে বল নিয়ে রাসেলের পোস্টে জমা করে দিয়ে হতাশায় ডুবিয়েছেন রাসেলকে। রাসেল অধিনায়ক আতিকুর রহমানের আক্ষেপ, ‘জেতা ম্যাচ ড্র করে ফেললাম আমরা নিজেদের ভুলে। ফিরতি লেগে বারিধারার ম্যাচ বাদ দিলে আমাদের পারফরম্যান্স খারাপ নয়। শেষ সময়ে ডিফেন্সের ভুলে গোল খেয়েছি। এটা আসলে দুর্ভাগ্য ছাড়া কিছুই নয়।’

Copyright © 2021 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.