Pre-loader logo

সংবাদপত্র বিক্রেতাদের বসুন্ধরা গ্রুপের ২০ লাখ টাকা অনুদান

সংবাদপত্র বিক্রেতাদের বসুন্ধরা গ্রুপের ২০ লাখ টাকা অনুদান

সংবাদপত্র বিক্রেতাদের পাশে দাঁড়িয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ। সংবাদপত্র বিক্রেতাদের (হকার) চারটি সংগঠনের জন্য ২০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছে বসুন্ধরা গ্রুপ।

মঙ্গলবার (১৯ মে) রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় অবস্থিত বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেড কোয়াটার্স-১ এ ঢাকা সংবাদপত্র হকার্স বহুমুখী সমবায় সমিতিরি সার্কুলেশন ম্যানেজার মো. আবুল কালাম ও সংবাদপত্র হকার্স কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতির সম্পাদক মো. সাহাবুদ্দিনের হাতে অনুদানের চেক তুলে দেন বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীর।

এসময় বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক ও নিউজ টোয়েন্টিফোরের সিইও নঈম নিজাম, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব শাবান মাহমুদ এবং বাংলাদেশ প্রতিদিন-কালের কণ্ঠ-ডেইলি সানের সার্কুলেশন বিভাগের জিএম মো: বিল্লাল হোসেন মন্টু উপস্থিত ছিলেন।

বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীর বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ এবং ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের পক্ষ থেকে হকার ভাইদের ঈদ মোবারক। আর্ত-মানবতার সেবায় বসুন্ধরা গ্রুপ শুরু থেকেই কাজ করছে। করোনাকালীন যারা কষ্ট করে পত্রিকা বিক্রি করছেন, এই দুঃসময়ে মানুষের কাছে সংবাদপত্র পৌঁছে দিচ্ছে, তাদের পাশে আছে বসুন্ধরা গ্রুপ। এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। তারই অংশ হিসেবে আজ ২০ লাখ টাকা দেওয়া হলো। এর আগেও সহায়তা করেছি। আগামীতে আরও করব।

বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক ও নিউজ টোয়েন্টিফোরের সিইও নঈম নিজাম হকার্স সমিতির নেতাদের উদ্দেশে বলেন, আমরা সবসময় আপনাদের সঙ্গে থাকার চেষ্টা করেছি। আপনারাও আমাদের সঙ্গে আছেন। বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন করোনা ভাইরাসের এই পরিস্থিতিতে আপনাদের পাশে থাকবেন। তারই ধারাবাহিকতায় আমরা এর আগেও দুই হাজার হকার এবং অন্যদের সহায়তা করেছি। বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আপনাদের পাশে থাকবেন। এরই অংশ হিসেবে আজ ২০ লাখ টাকা হস্তান্তর করা হলো। আপনারা যারা মাঠে কাজ করেন, দুঃসময়ে কষ্ট করে ঘরে ঘরে পত্রিকা পৌঁছে দিচ্ছেন, বসুন্ধরা গ্রুপ তাদের পাশে ছিল, আছে, থাকবে। প্রতিবছর ঈদ উপলক্ষে আমরা আপনাদের পাশে থাকি। এবার কঠিন সময়ের কারণে আলাদাভাবে এই অনুদান দেওয়া হলো।

এসময় ঢাকা সংবাদপত্র হকার্স বহুমুখী সমবায় সমিতিরি সার্কুলেশন ম্যানেজার মো. আবুল কালাম বলেন, বসুন্ধরা বরাবরই সংবাদপত্র হকার্স সমিতি, কল্যাণ সমিতি সমস্ত হকারের পাশে ছিল। এখনও আছে। আশা করি ভবিষ্যতেও থাকবে। আমরা এই অনুদানের জন্য কৃতজ্ঞ।

সংবাদপত্র হকার্স কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতির সম্পাদক মো. সাহাবুদ্দিন বলেন, সারাদেশে অন্যসব পত্রিকা যে পরিমাণ চলে তার সমপরিমাণ চলে শুধু বাংলাদেশ প্রতিদিন। এই সময়ে হকারদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য বসুন্ধরা গ্রুপকে অন্তরের অন্তস্থল থেকে ধন্যবাদ।

বাংলাদেশ সংবাদপত্র এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আলী বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ সবসময় সংবাদপত্র এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের পাশে ছিল। এখনও আছে। ক্রান্তি লগ্নে আমাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে অসংখ্য ধনবাদ জানাচ্ছি বসুন্ধরা গ্রুপকে।

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রথম থেকেই দেশ ও মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে বসুন্ধরা গ্রুপ। এর অংশ হিসেবে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় হাসপাতাল তৈরিতে স্থাপনা দিয়ে সরকারকে সহযোগিতা করেছে এ শিল্প গ্রুপ।

এছাড়া করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ১০ কোটি টাকার চেকও হস্তান্তর করেন বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর।

এর আগে সামরিক চিকিৎসা সার্ভিস মহাপরিদপ্তরকে এক হাজার পিপিই ও ৫০ হাজার মাস্ক, ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক (উত্তর) বিভাগকে ২৫ হাজার মাস্ক, নৌবাহিনীকে ৫০ হাজার মাস্ক, ৫০০ পিপিই ও দুই ট্রাক (৭০০ প্যাকেট) খাদ্যসামগ্রী, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নকে (র‌্যাব) ৫০ হাজার মাস্ক ও চার ট্রাক খাদ্যসামগ্রী এবং ঢাকা মহানগর পুলিশকে (ডিএমপি) ৫০ হাজার মাস্ক, বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীকে ২৫ হাজার মাস্ক ও তিন হাজার ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) দিয়েছে বসুন্ধরা গ্রুপ।

এছাড়া বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে রাজধানীর দুস্থ ও নিম্ন আয়ের কয়েক হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তাও দেওয়া হয়েছে। প্রতিদিন ইফতার করানো হচ্ছে পুলিশসহ কয়েক হাজার নিম্ন আয়ের মানুষকে।

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.