Pre-loader logo

স্ক্র্যাচ কার্ডের তৃতীয় দফায় পুরস্কার পেলেন ১৭ জন

স্ক্র্যাচ কার্ডের তৃতীয় দফায় পুরস্কার পেলেন ১৭ জন

বসুন্ধরা টিস্যুর ধামাকা স্ক্র্যাচ কার্ড অফারের তৃতীয় দফার পুরস্কার পেয়েছেন ১৭ জন অংশগ্রহণকারী। এর মধ্যে মোটরবাইক পেয়েছেন মো. হাবিবুর রহমান ও মো. কামাল হোসেন মুরাদ। ল্যাপটপ পেয়েছেন সৈয়দা ফারজানা। মাইক্রোওয়েভ ওভেন পেয়েছেন মো. জসিম উদ্দিন, সানজিদা সুলতানা, সোমা অধিকারী ও আবদুল মালেক।
এ ছাড়া গোল্ড কয়েন পুরস্কার পেয়েছেন মো. জাহিদ হাসান, গিয়াস উদ্দিন, মো. মোসলে উদ্দিন, মো. তানভীর আহমেদ, মাহমুদুর রহমান হৃদয়, মো. সানোয়ার হোসেন সবুজ, জাহাঙ্গীর আলম, মো. সুজন আহমেদ, মো. আবুল বাসার ও ড. আখতারুজ্জামান। তাঁরা দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে বসুন্ধরা ফেসিয়াল টিস্যু বক্স কিনে এই ধামাকা স্ক্র্যাচ কার্ড অফারে অংশ নেন।
গতকাল রবিবার রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিকে বসুন্ধরা ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেডকোয়ার্টার-২-এর সম্মেলনকক্ষে বসুন্ধরা পেপার মিলস লিমিটেড আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন বসুন্ধরা গ্রুপের পরিচালক ইয়াশা সোবহান। এ সময় তিনি বিজয়ীদের অভিনন্দন জানান এবং একই সঙ্গে উপস্থিত সবাইকে বসুন্ধরা টিস্যু ব্যবহার করতে আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, যাত্রা শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত ১৮ বছর পাড়ি দিয়েছে বসুন্ধরা টিস্যু। দীর্ঘ দেড় যুগের এই পথচলাকে উদ্‌যাপন করতে সম্প্রতি এই ধামাকা স্ক্র্যাচ কার্ড অফার চালু করে বসুন্ধরা টিস্যু। আয়োজকরা জানান, অফারের অংশ নিতে হলে বাজার থেকে একটি ফেসিয়াল টিস্যু বক্সের সঙ্গে পাওয়া স্ক্র্যাচ কার্ড ঘষে যে নম্বর পাওয়া যাবে, সেটা ৬৯৬৯ নম্বরে এসএমএস করতে হবে। এসএমএস পাঠানোর নিয়ম, ই<েঝঢ়ধপব> স্ক্র্যাচ কার্ডের গোপন নম্বর লিখে ৬৯৬৯ নম্বরে এসএমএস করতে হবে যেকোনো মোবাইল নম্বর থেকে। ফিরতি এসএমএসে জানানো হবে কী পুরস্কার পাওয়া যাবে। এই ক্যাম্পেইন চলাকালে বিজয়ীদের জন্য অফার থাকছে গাড়ি, মোটরবাইক, ল্যাপটপ, মাইক্রোওয়েব ওভেন, গোল্ড কয়েনসহ লাখ লাখ পুরস্কারের। অফারটি চলবে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত।
এর আগে দুই দফা পুরস্কার বিতরণ হয়েছে এই অফারের। এরই মধ্যে গোল্ড কয়েন পেয়েছেন সাতজন, মোটরবাইক পেয়েছেন দুজন, ল্যাপটপ পেয়েছেন তিনজন এবং মাইক্রোওয়েভ ওভেন পেয়েছেন দুজন। অনুষ্ঠানে বসুন্ধরা সেক্টর ‘সি’-এর প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা (সিএফও) মির্জা মুজাহিদুল ইসলাম, নির্বাহী পরিচালক মো. মাসুদুজ্জামান ও মহাব্যবস্থাপক (বিপণন) তৌফিক হাসানসহ বসুন্ধরা টিস্যুর বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
তৌফিক হাসান বলেন, ‘দেশে বসুন্ধরাই প্রথম টিস্যু পেপার উৎপাদন শুরু করে। ২০০০ সালের মে মাসে এই প্রতিষ্ঠানটি যাত্রা শুরু করে। বলা যায়, এই প্রতিষ্ঠানটিই দেশের মানুষকে প্রথম টিস্যু ব্যবহার করতে শেখায়। এর মধ্যে প্রতিষ্ঠানটি দেড় যুগ পাড়ি দিয়েছে। সে উপলক্ষেই আমরা বসুন্ধরা টিস্যু ধামাকা স্ক্র্যাচ কার্ড অফার চালু করি। গত মে মাস থেকে এই ক্যাম্পেইন শুরু হয়েছে।’

Copyright © 2020 Sayem Sobhan Anvir. All Rights Reserved.